Tech

ফাইভারে একাউন্ট খুলার পদ্ধতি ২০২১

আমাদের মধ্যে অনেকে আছে। যারা ফাইভার এ কাজ করতে আগ্রহী। কিন্তু সেখানে কিভাবে শুরু করবে? এই বিষয়ে ধারনা নাই বললেই চলে। তাই বিষয়ে নিয়ে আমরা পর পর অনেক গুলো আর্টিকেল লিখার চেষ্টা করবো। এখন দেখাবো কিভাবে খুব সহজেই আপনি একটি ফাইভারে একাউন্ট তৈরি করে ফেলতে পারবেন।

প্রথমতো ফাইভারে একাউন্ট খুলার আগে যে যে বিষয় অবশ্যই জানা থাকা লাগবে। সেগুলো হলো আপনি ফাইভারে কেনো একাউন্ট খুলবেন। কি করতে চাচ্ছেন। অবশ্যই আপনার মুখে একটি কথা আসবে। সেটা হলো আপনি সেখানে বা ফাইভার মার্কেট প্লেসে কাজ করবেন। কিন্তু কি কাজ করবেন সেটা জানেন কি বা আপনার এমন কোনো কাজ শিখা বা জানা আছে কি? যার ফলে আপনি ফাইভার এর বায়ারদের কাজ করে দিতে পারবেন।

How to Create Fiverr Account 2021

মনে রাখনে ফাইভার আপনাকে এমনি এমনি ডলার দিবে না। অবশ্যই কাজে যথেষ্ট ভালো দক্ষতা অর্জন করেই মার্কেটিং শুরু করতে হবে। এর জন্য একাউন্ট আগেই না খুলে এ বিষয় গুগলে সার্চ করে বিভিন্ন বিষয় জানুন। সাথে ২-৩ টা অনলাইন বা অফলাইন কোর্স করুন বিভিন্ন কাজ সমন্ধে। যেমন ওয়েবসাইট ডিজাইন, গ্রাফিক্স ডিজাইন, ফটো এডিটিং, ভিডিও এডিটিং ও এনিমেশন, ডিজিটাল মার্কেটিং এমন হাজারো কাজ শিখার আছে। যা ফাইভারে অনেক চাহিদা রয়েছে। তবেই আপনি কাজ শুরু করতে পারবেন। যদিও শুরু টা সফল ফ্রিল্যান্সারদের কাছেই অনেক কঠিন।

 

আরো পড়ুন…

 

Create Fiverr Account 2021
ফাইভারে একাউন্ট খুলার উপায়

 

কিন্তু একবার নিজের অভিজ্ঞতা দ্বারা উঠে গেলে। আর কেউ আপনাকে ধামাতে পারবে না। অবশ্যই ফাইরে একাউন্ট খুলার আগে, একদম ফ্রেস ও নতুন একটি জিমেইল একাউন্ট খুলে নিবে। তা হলে পরবর্তীতে আর কোনো ঝামেলায় পরতে হবে না। কারন ফাইভার অনেক প্রটেকশন এ রাখে সেলারদের। কোনো ভুল ত্রুটি পেলেই একাউন্ট এর বারো টা বাজিয়ে দিবে।

 

ব্র্যান্ডিং নাম

আর হ্যাঁ, একাউন্ট খুলার সময় ব্র‍্যান্ডিং একটা ইউজার নেম দিয়ে খুলবেন। তাহলে বায়াররা আপনাকে সার্চ করে খুব সহজেই খুজে পাবে। তা না হয় আপনি এক অ্যামাজন জঙ্গলে হারিয়েও যেতে পারেন। যার ফলে কোনো বায়ার আপনাকে হারিকেন লাগিয়েও খুজে পাবে না৷ এই বিষয় টা অবশ্যই ফোকাস দিন।

তো বেশি কথা না বলে চলুন একাউন্ট খুলার পদ্ধতি শেয়ার করি।

প্রথমে ফাইভার এর অফিসিয়াল সাইটে প্রবেশ করবেন। রেকোমেন্ডেড থাকবে সম্পুর্ন কাজ কম্পিউটার বা ল্যাপটপে করার জন্য। এরপরে উপরের দিকে ডান পাশে Join বাটনে ক্লিক করুন। এবার একটা পপআপ দেখাবে। যেখানে কয়েকটা স্টেপ দেখানো আছে। প্রথম স্টেপ আপনি আপনার ফেসবুক একাউন্ট এর মাধ্যমে ফাইভারে সরাসরি সাইনআপ করতে পারবেন আবার জিমেইল দিয়েও। তবে আমি জিমেইল দিয়ে করতে বলবো। কেনোনা এটা একদম ফ্রেস ও নিরাপদ।

কারন ফেসবুকে করলে কোনো এক কারনে প্রব্লেম হতেও পারে। তবে আমি যেভাবে বলছি। একদম নিচে যে খালি ঘর টা রয়েছে। সেখানে সেই ফ্রেস জিমেইল আইডি টা বসিয়ে দিয়ে Continue বাটনে ক্লিক করুন। এবার পাস চাইবে। পাস টা বসিয়ে দিন নিজের মতো করে। অবশ্যই পাস এর উপরে Username দিতে হবে। সেটা কিন্তু সব সময় সব ধরনের নাম এভাইলেবল নাও থাকিতে পারে।

 

 

একাউন্ট খুলার সঠিক পদ্ধতি

তাই ইউনিক একটা নাম দিন। যাতে করে এটা কেউ এর আগে ব্যবহার করে নাই বা করতে না পারে। নিজের নাম দিতে চাইলে শেষে ২-১ টা সংখ্যা লিখে দিন। এবার Join এ ক্লিক করবেন একাউন্ট এ নিয়ে যাবে।

এরপরে ফাইভার একাউন্ট ভেরিফাই করার জন্য। আপনার দেওয়া মেইল এ একটা ভেরিফাই করার জন্য ভেরিফিকেশন মেইল যাবে নিজের ইমেইলে। সেখানে ক্লিক করে কনফার্ম করে দিন। এবার আপনার প্রোফাইল টিকে মনের মতো এডিট করে নিতে পারবেন। এর জন্য উপরের ডান পাশের প্রফাইল এ ক্লিক করে সেটিংস এ চলে যাবেন। দেখতে পারবেন। Full Name, Email, Pass, Online Status ইত্যাদি এডিট করতে পারবেন।

আজকে এই পর্যন্তই থাকবে। আবার পরবর্তী কোনো একটি আরো বিভিন্ন সিক্রেট বিষয় নিয়ে আলোচনা করবো। যা আপনারা জানিতে আগ্রহ কিন্তু জানেন না। আজকের পোস্ট টি ভালো লাগকে কমেন্ট করে জানাতে ভুলবেন না।

Related Articles

One Comment

  1. My spouse and I stumbled over here different website and
    thought I
    should check things out.
    I like what I see so now i am following
    you. Look forward to going over your web page again.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Back to top button